রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ১২:১৮ অপরাহ্ন

আমাদের লড়াই চলবে: অভিনেত্রী সায়নী

Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, ২৩ নভেম্বর, ২০২১
  • ১১ Time View
আমাদের লড়াই চলবে: অভিনেত্রী সায়নী
আমাদের লড়াই চলবে: অভিনেত্রী সায়নী

জামিন পেয়ে বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে সুর চড়িয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের জনপ্রিয় অভিনেত্রী ও যুব তৃণমূল কংগ্রেস প্রধান সায়নী ঘোষ।

সোমবার জামিন পাওয়ার পর এক প্রতিক্রিয়ায় তিনি বলেছেন, ‘আমার বিরুদ্ধে ভিত্তিহীন অভিযোগ প্রমাণিত। আমাদের লড়াই চলবে। এভাবে দমানো যাবে না।’

রোববার ত্রিপুরা রাজ্য থেকে হত্যা চেষ্টার অভিযোগে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। সোমবার বিকালে সায়নীকে আগরতলা আদালতে পেশ করে সোমবার জামিন পাওয়ার পর এক প্রতিক্রিয়ায় তিনি বলেছেন, ‘আমার বিরুদ্ধে ভিত্তিহীন অভিযোগ প্রমাণিত। আমাদের লড়াই চলবে। এভাবে দমানো যাবে না।’

রোববার ত্রিপুরা রাজ্য থেকে হত্যা চেষ্টার অভিযোগে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। সোমবার বিকালে সায়নীকে আগরতলা আদালতে পেশ করে দু’দিনের জন্য হেফাজতে চেয়ে আবেদন করে পুলিশ। তবে শুনানির পর তাকে জামিন দেন বিচারক।

আদালত থেকে বেরিয়ে এক প্রতিক্রিয়ায় তৃণমূল যুব নেতা সায়নী ঘোষ বলেন, আদালতের প্রতি বিশ্বাস ছিল। এটা সত্যের জয়। যে পথে লড়াই করেছি, সেই পথেই লড়ব। মিথ্যা মামলা করে দমানো যাবে না।

তিনি আরও বলেন, আমাকে শারীরিক ভাবে হেনস্থাও করা হয়েছে। রাতে যে ভাবে আক্রমণ করা হয়েছে, তাতে আমি শঙ্কিত হয়ে পড়ি। তারপর আমাকে অন্য একটি পুলিশ স্টেশনে নিয়ে যাওয়া হয়।

সায়নীর বিরুদ্ধে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ এনে পুলিশ বলেছিল, মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবের সভার পাশ দিয়ে জোরে গাড়ি চালিয়ে যাচ্ছিলেন সায়নী। সে সময় এক পথচারীকে ধাক্কা দেয় তার গাড়ি। এছাড়া সায়নীর বিরুদ্ধে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রীকে নিয়ে কুরুচিকর মন্তব্যের অভিযোগও এনেছিল পুলিশ।

এরপর থানায় দীর্ঘ জিজ্ঞাসাবাদের পর গ্রেফতার করা হয় তাকে। সায়নীর গ্রেফতারের পর থেকে ক্রমশ উত্তপ্ত হতে শুরু করে ত্রিপুরার রাজনীতি। দিনের জন্য হেফাজতে চেয়ে আবেদন করে পুলিশ। তবে শুনানির পর তাকে জামিন দেন বিচারক।

আদালত থেকে বেরিয়ে এক প্রতিক্রিয়ায় তৃণমূল যুব নেতা সায়নী ঘোষ বলেন, আদালতের প্রতি বিশ্বাস ছিল। এটা সত্যের জয়। যে পথে লড়াই করেছি, সেই পথেই লড়ব। মিথ্যা মামলা করে দমানো যাবে না।

তিনি আরও বলেন, আমাকে শারীরিক ভাবে হেনস্থাও করা হয়েছে। রাতে যে ভাবে আক্রমণ করা হয়েছে, তাতে আমি শঙ্কিত হয়ে পড়ি। তারপর আমাকে অন্য একটি পুলিশ স্টেশনে নিয়ে যাওয়া হয়।

সায়নীর বিরুদ্ধে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ এনে পুলিশ বলেছিল, মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবের সভার পাশ দিয়ে জোরে গাড়ি চালিয়ে যাচ্ছিলেন সায়নী। সে সময় এক পথচারীকে ধাক্কা দেয় তার গাড়ি। এছাড়া সায়নীর বিরুদ্ধে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রীকে নিয়ে কুরুচিকর মন্তব্যের অভিযোগও এনেছিল পুলিশ।

এরপর থানায় দীর্ঘ জিজ্ঞাসাবাদের পর গ্রেফতার করা হয় তাকে। সায়নীর গ্রেফতারের পর থেকে ক্রমশ উত্তপ্ত হতে শুরু করে ত্রিপুরার রাজনীতি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Copyright © All rights reserved © 2022 Jagoroni Tv
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com