সোমবার, ০৩ অক্টোবর ২০২২, ০৩:৩৭ পূর্বাহ্ন

১২৫ রানেই অস্ট্রেলিয়াকে থামিয়ে দিল ইংল্যান্ড

Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, ৩০ অক্টোবর, ২০২১
  • ৮ Time View
১২৫ রানেই অস্ট্রেলিয়াকে থামিয়ে দিল ইংল্যান্ড
১২৫ রানেই অস্ট্রেলিয়াকে থামিয়ে দিল ইংল্যান্ড

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভ পর্বের অন্যতম সেরা লড়াই। তবে অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটসম্যানরা এমন দ্বৈরথে শুরুতে ব্যাটিংয়ে নেমে বলা চলে হতাশই করেছেন ।

হাইভোল্টেজ ম্যাচে শনিবার (৩০ অক্টোবর) দুবাই ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতেই বিপর্যয়ে পড়ে ক্যাঙ্গারু বাহিনী। শেষ পর্যন্ত অজি অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চের ব্যক্তিগত ৪৪ রানে ভর করে সবকটি উইকেট হারিয়ে ১২৫ রানের পুঁজি গড়ে অস্ট্রেলিয়া। এ ম্যাচে জিততে হলে ইংল্যান্ডকে করতে হবে ১২৬ রান।

ইনিংসের প্রথম ওভার উইকেট শূন্য থেকে শেষ করার পর ইংলিশ বোলারদের তোপে দ্বিতীয়, তৃতীয় এবং চতুর্থ ওভারে দলের সেরা তিন ব্যাটসম্যানকে হারায় অজিরা। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে গত ম্যাচে বড় রানের মুখ দেখলেও ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ফের ব্যাট হাতে ব্যর্থ ডেভিড ওয়ার্নার। ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে ক্রিস ওকসের বলে বাটলারের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন এই ওপেনার। আউট হওয়ার আগে ২ বলে ১ রান করেছেন।

ওয়ার্নারের হতাশার দিনে ব্যাট হাতে ব্যর্থ স্টিভ স্মিথও। তৃতীয় ওভারে ক্রিস জর্ডানের বলে ওকসের হাতে ধরা পড়েন স্মিথ। ৫ বলে করেছেন মাত্র ১ রান। এরপর চতুর্থ ওভারে গ্লেন ম্যাক্সওয়েলকে ফেরান ক্রিস ওকস।

ইনিংসের সপ্তম ওভারে আদিল রশিদের বলে এলবিডব্লিউ হন মার্কাস স্টয়নিস। ৪ বল খরচায় কোনো রান না করেই আউট হন তিনি। ২১ রান তুলতে গিয়েই ৪ উইকেট হারায় অস্ট্রেলিয়া। এরপর ১২ তম ওভারে লিভিংস্টোনের বলে জেসন রয়ের হাতে ধরা পড়েন ম্যাথিউ ওয়েড। আউট হওয়ার আগে দুই বাউন্ডারির সাহায্যে ১৮ বলে ১৮ রান করেন তিনি।

প্রথম ১৫ ওভারে রান না পেলেও শেষদিকে ঝড় তোলেন অজি ব্যাটাররা। ইনিংসের ১৭তম ওভারে ক্রিস ওকসের বলে জোড়া ছক্কা হাঁকান অ্যাস্টন এগার। এই ওভারেই মোট ২০ রান উঠে। তবে বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি অ্যাগারও। তাকে ফিরিয়েছেরন টাইমাল মিলস। দুই ছক্কার সাহায্যে ২০ বলে ২০ রান করে লিভিংস্টোনের হাতে ধরা পড়েন তিনি।

একপ্রান্তের ব্যাটারদের আসা-যাওয়ার মিছিলে আরেকপ্রান্ত ঠিকই আগলে রাখছিলেন অধিনায়ক ফিঞ্চ। তবে ১৯তম ওভারে ব্যক্তিগত ৪৪ রান করে জর্ডানের বলে বেয়ারস্টোর হাতে ধরা পড়েন তিনিও।

টি-টোয়েন্টিতে মুখোমুখি ১৯ দেখায় ১০টিতে জিতেছে অজিরা। ৮ জয় আছে থ্রি লায়নদের। বিশ্বকাপে দুইবার দেখায় ১টি করে জয় আছে দু’দলের। তবে, সবশেষ সাক্ষাতে ২০১০ আসরের ফাইনালে এই অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়েই চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল ইংল্যান্ড।

অ্যাশেজ দু’দলের লড়াইকে নিয়ে গেছে ভিন্ন স্তরে। ঐতিহাসিক সে টেস্ট সিরিজ আবারো মাঠে গড়াবে ডিসেম্বরে। বারুদে টেস্ট সিরিজের আগে টি-টোয়েন্টির বিশ্বমঞ্চে মুখোমুখি অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ড।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
Copyright © All rights reserved © 2022 Jagoroni Tv
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com