অন্যান্য 

করোনা থেকে বাঁচতে বয়স্করা কি করবেন ?

জাগরণী ডেস্ক

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে বিশ্বব্যাপি প্রায় ৭শ কোটি মানুষ কোন না কোনভাবে হোম কোয়ারেন্টাইন পালন করছে। এদের মধ্যে প্রায় ১০ ভাগই রয়েছেন প্রবীণ বয়স্ক। চিকিৎসকেরা বলছেন, এই পরিস্থিতিতে সবচেয়ে বেশি সতর্ক হতে হবে প্রবীণদের। হোম কোয়ারেন্টাইন পালনের সময়ে তাঁদের দিকেই সবচেয়ে বেশি নজর দিতে হবে। কারণ, কম বয়সীদের তুলনায় প্রবীণরাই করোনাভাইরাসের সংক্রমণের শিকার হচ্ছেন বেশি।

এ সময়টাতে প্রবীণদের উপর বেশি করে নজর রাখার প্রয়োজন। যাঁরা দীর্ঘ দিন ধরে ভুগছেন ডায়াবিটিস, হাঁপানি, হৃদরোগে বা কিডনির মতো অসুখে। তাঁদের ক্ষেত্রে করোনা সংক্রমণের সম্ভাবনা অন্যদের চেয়ে অনেক বেশি।

প্রবিণদের দেহে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা অন্য প্রবীণ নাগরিকদের চেয়ে কম। তাঁদের বাড়ীর বাইরে বের হতে না দেওয়াই উচিত। তবে যদি বাজার বা ওষুধের দোকানে তাঁদের যেতেই হয়, তা হলে তারা যেন অবশ্যই মাস্ক পরে বের হন। তা ছাড়াও, যে সব প্রবীণ নাগরিক দীর্ঘ দিন ধরে ডায়াবিটিস, হাঁপানিসহ নানা ধরনের হৃদরোগে বা কিডনির অসুখে আক্রান্ত, ডাক্তার তাঁদের যা যা ওষুধ খেতে বলেছেন, আর তার জন্য যে ‘ডোসেজ’ বেঁধে দিয়েছেন, নিয়মিত ভাবে সেই সব ওষুধ খেয়ে যেতে হবে। ওষুধগুলি যে সময়  খেতে বলা হয়েছে, আক্ষরিক অর্থেই সেই ভাবে খেয়ে যেতে হবে। কোনও ব্যতিক্রম ঘটলেই তাঁদের দেহের প্রতিরোধ ক্ষমতা আর দুর্বল হয়ে পড়বে। ফলে, করোনা সংক্রমণের আশঙ্কা তাঁদের ক্ষেত্রে আরও বেড়ে যাবে।

শুধু তাই নয়, বাড়ীর প্রবীণ ব্যক্তিদের এখন প্রয়োজন সুস্থ থাকা এবং সুস্থ রাখা। সে জন্য যতটা সম্ভব মশলাপাতি কম থাকা খাবার তাঁদের দিতে হবে। যাতে হজমে কোন সমস্যা না হয়। কোন ভাবে তাঁদের পেটের অসুখ যাতে না হতে পারে এজন্য যে পাত্রে খাবার দেওয়া হবে, তা খুব ভাল ভাবে ধুঁয়ে নিতে হবে।

খেতে হবে প্রচুর পানি। দিনে অন্তত ৩ থেকে ৪ লিটার পানি বাধ্যতামূলক। এই পরিমাণে পানি খেলে প্র¯্রাব ও মলত্যাগের সমস্যা থাকবে না। দেহের প্রতিরোধ ব্যবস্থাকে কর্মক্ষম ও সক্রিয় রাখার জন্য রোজ এই পরিমাণ পানি খেতে হবে । চিকিৎসকেরা এও জানিয়েছেন, এই সময় বাইরের লোকজন, আত্মীয়স্বজন, এমনকী, পরিচালক, পরিচালিকাদের থেকেও দূরে রাখতে হবে তাদের। যেহেতু প্রবীণদেরই সংক্রমিত হওয়ার সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি, তাই বাইরের লোকজন থেকে তাঁদের দুরে রাখাটাই শ্রেয়।

Please follow and like us:

Related posts

Leave a Comment